নবীর প্রেম ও আল্লাহর জন্য যদি কোনো বুলেট আসে তা আমরা বুক পেতে নিতে রাজি আছি – মাও আব্দুল আউয়াল

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : শহরের ডিআইটি জামে মসজিদের খতিব ও নারায়ণগঞ্জ উলামা পরিষদের সভাপতি মাওলানা আব্দুল আউয়াল বলেছেন, মুসলমান ভাইয়েরা জানতে চায়, আমাদের সরকার চুপ হয়ে আছে কেনো? আমরা তো ভালো করে জানি যে ভারত সরকারের ‘ইশারা-ইঙ্গিতে’ বাহক হিসেবে তারা এই দেশ শাষন করেন। যার ইসারা ইঙ্গিতে আমাদের প্রাণ প্রিয় ভাইদেরকে দির্ঘ দিন পর্যন্ত জেলে আটকিয়ে রেখেছ। কতবার আলোচনা করা হলো, কিন্তু আমাদের আলেম-ওলামা ভাইদের তারা জেল থেকে মুক্তি দিতে সাহস পায় না। এরা মনে করেছে তারা বেরিয়ে আসলেই আবার জনগণ এক হইয়া না যেনো কোন আন্দোলন করে।

শুক্রবার (১০ জুন) জুম্মার নামাজের পর ডিআটি মসজিদের সামনে আয়োজিত উলামা পরিষদের বিক্ষোভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, নবীর প্রেম ও আল্লাহর জন্য যদি কোনো বুলেট আসে তা আমরা বুক পেতে নিতে রাজি আছি। আমার জীবনের শেষ মুহুরর্ত পর্যন্ত যদি আল্লাহ এবং তার রাসুল তথা কোরআনের বিরুদ্ধে কেনো কুলাঙ্গার বা কেউ যদি কিছু বলে। প্রয়োজনে আমরা তার জিভ টেনে ছিড়ে ফেলবো। এমনিক এর জন্য বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিতেও সকলে প্রস্তুত আছি। ভারতের বিজেপির নুপুর শর্মা একজন সাধারণ ব্যক্তি। সে আসলে যে কথাটুকু বলেছে সেটা তার নয়। ভারত সরকার, বিজেপি সরকার ইতিমধ্যে আমরা দেখছি, মসজিদ ভেঙ্গে মন্দির তৈরি করেছে। নুপুর শর্মার বিরুদ্ধে মুসলিম যারা মিছিল করেছে তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ একশন নিয়ে আহত করেছে। এসব কিসের ইঙ্গিত করেছে বিজিবপ সরকার। আল্লাহর পয়গাম্বরের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধাচরণকারীকে যদি তুমি আশ্রয় দাও তবে আল্লাহর পক্ষ থেকে তোমার সব নিস্তেজ করে দেয়া হবে। মনেরাখো এই বাংলার জামিনে বিভিন্ন যায়গায় এখন আগুন, মহামারি ,ঘূর্ণিঝড়, টর্নেডো যা কিছু দেখছো সব এই আলেমদের বদ দোয়া ছাড়া আর কিছু নয়। অনতিবিলম্ভে সংসদে তার নিন্দা প্রস্তাব জ্ঞাপন করুন। ভারত সরকারের কমিশনার যারা আছেন এবং তাদের দুতাবাসকে ডেকে এনে কঠিন ভাবে নিন্দা পেশ করুন। বিচারের কাষ্টে তাকে নিয়ে আসুন।

এ সময় উলামা পরিষদের নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগরের অন্যান্য নেতৃবৃন্দগণ বক্তব্য রাখেন।