যদি আমরা সহনশীল হই তাহলে অবশ্যই আমরা এগিয়ে যেতে পারবো- জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো: মোস্তাইন বিল্লাহ বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ একটি শিল্প এলাকা। প্রায় ৭০ থেকে ৮০ লক্ষ মানুষ এখানে বসবাস করে। তাই চলাচল সহজ করার জন্য ফ্লাইওভার এর কোন বিকল্প নেই। ছেলেমেয়েরা যাতে ভালো শিক্ষা ব্যবস্থা পেতে পারে সেজন্য প্রয়োজন ভালো স্কুল-কলেজ। ছেলেমেয়েরা সঠিকভাবে বেড়ে উঠছে কিনা সেদিকে আমাদের খেয়াল রাখতে হবে। যদি তারা সুস্থ্য দেহ মন নিয়ে বেড়ে উঠতে না পারে তাহলে আমরা একটি সুন্দর বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারবোনা। যদি আমরা সহনশীল হই তাহলে অবশ্যই আমরা এগিয়ে যেতে পারবো। আমরা একটি ইতিবাচক নারায়ণগঞ্জ গড়ে তুলতে চাই। ইতিবাচক ও স্বপ্নময় নারায়ণগঞ্জ গড়ে তুলতে হলে আমাদের সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে।

মঙ্গলবার (১৯ জানুয়ারী) সকাল ১১টায় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলায় জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা ও বিভিন্ন শ্রেনি পেশার ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জকে বলা হয়েছে করোনার হট স্পট। কিন্তু আমাদের জেলার সংসদ সদস্যদের সহযোগিতায় এ সমস্যা মোকাবেলায় আমরা সফল হয়েছি। নারায়ণগঞ্জকে সুরক্ষিত রাখতে পেরেছি। আমরা মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে কাজ করবো। আমি মুক্তিযোদ্ধার সন্তান বলে নয়, তাদের জন্যই আমরা এই স্বাধীন দেশ পেয়েছি। নারায়ণগঞ্জে অনেক অটিজম শিশু রয়েছে তাদের জন্য স্কুল তৈরি করা হবে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক এর সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, বক্তাবলি ইউপি চেয়ারম্যান ও ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধরণ সম্পাদক এম শওকত আলী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান এড. আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস, ভাইস চেয়ারম্যান নাজিমউদ্দীন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, ফতুল্লা ইউপি চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান স্বপন, এনায়েতনগর এর চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান, কুতুবপুরের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু, গোগনগর ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নূর হোসেন সওদাগর, ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ জাহিদুল ইসলাম সহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।

অনুষ্ঠান শেষে ১৫ জন প্রতিবন্ধির মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করা হয় এবং সদর উপজেলায় সেবা নিতে আসা মানুষদের জন্য বসার স্থান ‘ক্ষনিকালয়’ এর শুভ উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক।