তিতাস গ্যাস কর্মচারী ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : তিতাস গ্যাস কর্মচারী ইউনিয়নের (সিবিএ) দ্বি-বার্ষিক প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৩ ডিসেম্বর) নগরীর নবাব সলিমুল্লাহ সড়কের মেডিস্টার ক্লিনিকের পাশে আনসার ক্যাম্পের মাঠে দ্বি-বার্ষিকী প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে মোঃ রফিকুল ইসলামকে সভাপতি ও মোঃ হানিফ মিয়াকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক কমিটি গঠন করা হয়।

দ্বি-বার্ষিক প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মোতালেব হাওলাদার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, তিতাস গ্যাস কর্মচারী ইউনিয়নের (সিবিএ) সভাপতি কাজিমউদ্দিন প্রধান ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আয়েজ উদ্দিন আহম্মেদ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোতালেব হাওলাদার বলেন, আমি পূর্ব জন্মে হয়তো কোন ভালো কাজ করেছিলাম তাই আজ ওদের পেয়েছি। বর্তমানে কাজিম উদ্দিন প্রধান ও আয়েজের নেতৃত্বে যে পরিষদ রয়েছে তার ১৩ জনই হিরার টুকরা। ১৯৭৬ থেকে ২০১৩ দীর্ঘ ৩৬ বছর আমি তিতাসের সাথে সংযুক্ত ছিলাম। আমি মনে করি তিতাসের এই পথ রক্তাক্ত জনপদ। সুখের দিনে আমাকে না রাখলেও দুঃখের দিনে আমি সিবিএ’র সাথে আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকবো। আজকে যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে যখন ফিলিস্তিনের উপর অত্যাচার হয় তখন আপনারা কেন কথা বলেন না ? পদ্মা সেতু নিয়ে বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেক্কল খালেদা জিয়া বলেছিল, আপনারা পদ্মা সেতুতে উঠবেন না কারন সেটা বাঁশ দিয়ে বানানো হচ্ছে। আর লন্ডনে বসে তারেক রহমান মোল্লাদের মালপানি দিচ্ছে। আর মোল্লারা সেই টাকা পেয়ে লাফালাফি করছে।

তিতাস গ্যাস কর্মচারী ইউনিয়নের (সিবিএ) সভাপতি কাজিম উদ্দিন প্রধান বলেন, আজকে যারা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে উস্কানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছে তারা মুক্তিযুদ্ধের সময় কোথায় ছিল। কোথায় ছিল তারা যারা জামায়াতের দালাল হিসেবে কাজ করেছে। আপনারা সকলে ঐক্যবদ্ধ থাকেন বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ হবেই। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পেট্রো বাংলাসহ অনেকের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছিলাম কোন কাজ হয়নি। আবাসিক গ্যাস চালু করে দেন, তিতাসের অনেক আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে।

সম্মেলনে আরও বক্তব্য রাখেন, সিবিএ’র সিনিয়র সহ-সভাপতি একেএম কামাল উদ্দিন, সহ-সভাপতি জাকির হোসেন, সহসাধারণ সম্পাদক লায়ন ফারুক আহম্মেদ, অর্থ সম্পাদক মোঃ ফারুক হোসেন শেখ, দপ্তর সম্পাদক রতন বসু, প্রচার সম্পাদক মোঃ মুজিবুর রহমান, কার্যকরী সদস্য তাজুল ইসলাম, মোঃ হারুন অর রশিদ, শাহ মোহাম্মদ আকমল।

নর্বনির্বাচিত নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক কমিটির সদস্যরা হলেন – সভাপতি মোঃ রফিকুল ইসলাম, সহ সভাপতি মোঃ খায়ের আহমেদ, সহ-সভাপতি মোঃ মীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক হানিফ মিয়া, সহ সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন প্রধান, অর্থ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদুল করীম, সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল আসাদ, দপ্তর সম্পাদক সোহেল আহমেদ পাটোয়ারী, প্রচার সম্পাদক শামসুদ্দিন মিয়া, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শরীফ হোসেন, কার্যকরী সদস্য দুলাল মিয়া, সেলিম মিয়া, আইয়ুব খান, হাসান ইমাম, আলমগীর হোসেন।