কাশিপুরের আলোচিত ব্যবসায়ী শরীফ মাদবর হত্যার বিচার ও খুনিদের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার কাশিপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড (নূর মসজিদ সংলগ্ন) আদর্শ নগর এলাকার ইলেকট্রনিক্র ব্যবসায়ী শরীফ মাদবর হত্যার বিচার ও খুনি শাকিল ও লালন গ্রুপের সদস্য সহ সকল খুনিদের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার (১৯ অক্টোবর) সকাল ১১টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়।

মানববন্ধনে নিহত শরীফের পিতা আলাল মাদবর বলেন, গত ১লা এগ্রিল শাকিল ও লালন গ্রুপের সন্ত্রাসীরা আমার একমাত্র সন্তান শরিফ মাদবর কে কাশিপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আদর্শ নগর এলাকায় প্রকাশ্য দিবালোকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করে। হত্যাকারীদের ছবি পাশের একটি দোকান থেকে সিসি ক্যামেরা ফুটেজ থেকে সংগ্রহ করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। পরে ভিডিও ফুটেজে সকলকে চিনতে না পেরে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জনের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করি। কিন্তু মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহদাত হোসেন আমাকে না জানিয়ে মনগড়া ব্যক্তিদের স্বাক্ষী করে ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে ও ৩ জনের অব্যাহতি চেয়ে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। এই চার্জশিটের মাধ্যমে আমি কোন ন্যায় বিচার পাবোনা বলে আশংকা করছি। তাই আমি বর্তমান চার্জশিট বাতিল ও পরবর্তীতে সিআইডি কতৃক মামলার সুষ্ঠু তদন্ত শেষে আদালতে চার্জশিট দাখিলের আবেদন জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, আমার ছেলেকে যারা হত্যা করেছিলো তারা এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তাদের অপরাধ কর্মকান্ডে বাঁধা দেয়ায় তারা আমার ছেলের পরিচালিত বৃষ্টি ইলেক্ট্রনিক্স নামক দোকানে হামলা চালায়। ওই ঘটনার ন্যায় বিচার দাবী করে কাশীপুর ইউনিয়ন পরিষদের কাছে বিচার দিলে আমাদেরকে অপমান করেন। এছাড়াও এসকল সন্ত্রাসীরা কাশীপুর ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার শামীম আহমেদের আশ্রয় প্রশ্রয়ে বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড করে বেড়ায়। আমি একাধিকবার চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে ঘটনা জানালেও তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি। এমনকি হত্যাকান্ডের কিছুক্ষণ পূর্বেও আমার ছেলে মেম্বার শামীমকে ফোন করেছিলো কিন্তু সে আসেনি এবং অন্য কোন ব্যবস্থাও নেয়নি। এই সন্ত্রাসীরা কাশীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার আহমেদের লালিত পালিত সন্ত্রাসী। এই হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু ও ন্যায় বিচার দাবী করছি আমি।