নূর হোসেনের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও চাঁদাবাজির ৩টি মামলায় আদালতে সাক্ষ্য গ্রহণ

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : আলোচিত সাতখুন মামলায় ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেনের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও চাঁদাবাজির ৩টি মামলায় আদালতে সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) সকাল ১১ থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ বেগম সাবিনা ইয়াসমিনের আদালতে সাক্ষীদের এ সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। স্বাক্ষ গ্রহনকালে কাঠগাড়ায় আসামী নূর হোসেন, মো: আলি, জামাল ও সেলিম উপস্থিত ছিলেন। জামিনে থাকা নূর হোসেনের বড় ভাই নূর উদ্দিন, ভাতিজা শাহজালাল বাদলসহ অন্য আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) এড. জেসমিন আহমেদ জানান, সকাল ১১ টার দিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে সাতখুন মামলার ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত আসামি নূর হোসেনকে গাজীপুর জেলার কাশিমপুর কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জে আদালতে হাজির করা হয়। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে পুনরায় কড়া নিরাপত্তার মধ্যে তাকে কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় আদালতপাড়ায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন ছিল। এ ছাড়াও আদালতে এদিন ২০১৪ সালে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দায়ের করা চাঁদাবাজির একটি ও অস্ত্র ২ টি মামলায় নূর হোসেনের সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়। নূর হোসেনের বিরুদ্ধে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় অস্ত্র, মাদক, চাঁদাবাজিসহ ৮টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে ৩টি মামলায় আজ চারজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। আদালত পরবর্তী সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য দিন ধার্য করেছেন আগামী ১২ নভেম্বর।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম সহ সাতজনকে অপহরণের পর হত্যার দায়ে ২০১৭ সালের ১৬ জানুয়ারি নূর হোসেন এবং র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ২৬ জনকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন আদালত। এরপর থেকে নূর হোসেন কাশিমপুর কারাগারে বন্দি আছেন।