মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আলীগঞ্জ মাঠে মোহামেডান আবাহনী প্রীতি ফুটবল ম্যাচ

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : সদর উপজেলার ফতুল্লার আলীগঞ্জ মাঠে মুজিব শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে আলীগঞ্জ ক্লাব আয়োজিত প্রীতি ফুটবল ম্যাচ-২০২০ এর খেলায় ঢাকা মোহামেডান স্পোটিং ক্লাব বনাম চট্রগ্রাম আবাহনীর মধ্যকার অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় কোন দল গোল করতে না পারায় উভয় দলকেই বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

সোমবার (৩ ফেব্রয়ারী) বিকাল ৩টায় আলীগঞ্জ মাঠে এ প্রীতি ফুটবল ম্যাচের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় শ্রমিকলীগের সাবেক শ্রম ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ¦ কাউসার আহম্মেদ পলাশ।

সভাপতির বক্তব্যে পলাশ বলেন, এ মাঠটিকে নিয়ে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে। আমরা মাঠটি রক্ষা করতে গিয়ে বাধার সম্মূক্ষিন হয়েছি। শত বাধা পেরিয়েও আমরা খেলার মাঠটি রক্ষা করতে পেরেছি। এলাকার আবাল বৃদ্ধ বণিতা মাঠটি রক্ষায় এগিয়ে এসেছে।

তিনি আরো বলেন, আমরা কখনো মানববন্ধন, কখনো সংগ্রাম করে এই মাঠটিকে রক্ষা করেছি। যখন বুল ডেজার দিয়ে এই মাঠটি দখলে নিতে এসেছিল প্রশাসন, তখন স্থানীয়রা মাঠে শুয়ে পড়ে দখল রোধ করেছে। বার বার মাঠটি নিয়ে ষড়যন্ত্র হয়েছে। একনেকে যে বিল পাশ হয়েছে, সেদিন প্রশাসন মাঠ দখলে নিতে এলে আলীগঞ্জবাসীর রাজপথে শ্লোগানে শ্লোগানের মুখে প্রশাসন ফিরে যায়। তারা সেদিন মাঠ দখলে নিতে পারেনি। নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীও এই মাঠ রক্ষায় যথেষ্ট ভূমিকা রেখেছেন। সোণালী অতীত ক্লাবের খেলোয়ারদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে তিনি বলেন, তারা এই মাঠে বার বার খেলাধুলার আয়োজন করেছে বলেই এই মাঠ এখনো টিকে আছে। যুব সমাজকে মাদক থেকে দূরে রাখতে হলে খেলাধুলার কোন বিকল্প নাই। এই মাঠ মাদক থেকে দূরে রাখে। এই মাঠ না থাকলে যুব সমাজ ধ্বংস হয়ে যেত। এ সময় তিনি আলীগঞ্জ মাঠকে আন্তর্জাতিক ভ্যানুর সমপোযোগী মাঠ হিসেবে ঘোষণা করতে সরকারের প্রতি অনুরোধ রাখেন।

উক্ত অনুষ্ঠানে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার কায়সার হামিদ, সাঈদ হাসান কানন, পনির, বিদ্যুৎ প্রমূখ। এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন আলীগঞ্জ ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক হাজী নুরুল ইসলাম, কোষাধক্ষ্য হাজী আরিফুল ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া সাত্তার, সমাজসেবা সম্পাদক হাজী শামীম, শাহাদাৎ হোসেন সেন্টু, কুতুবপুর ইউনিয়ন যুদ্ধকালীন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা জহির উদ্দিন জজ, আলীগঞ্জ জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি হাজী মফিদুল ইসলাম, সদস্য হাবিব মোঃ বোরহার উদ্দিন প্রমূখ।