মোবাইল ফোনে ডেকে এনে ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে ছুরিাকাঘাতে হত্যা, গ্রেফতার ১

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : সদর উপজেলার ফতুল্লার দেওভোগ এলাকায় মোবাইল ফোনে ডেকে এনে সন্ত্রাসীরা ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছে সোলেয়মান হোসেন অপু (২৮) নামক এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রিকে।

শুক্রবার (২৩ আগষ্ট) দিবাগত রাত ৮ টার দিকে ফতুল্লার মডেল দেওভোগ নাগবাড়ী মন্দির এলাকায় এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে।
নিহত অপু ফতুল্লার দেওভোগ তাতীপাড়া এলাকার আজিজ মিয়ার ভাড়াটিয়া রমজান মিয়ার ছেলে। পুলিশ এ ঘটনায় পারভেজ নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। পরভেজ পুলিশের কাছে হত্যার দায় স্বীকার করেছে।

জানা যায়, অপু বাবুরাইল এলাকার কাশেম ডেকারেটোরে ইলেকট্রিক মিস্ত্রি হিসেবে কাজ করতো। শুক্রবার রাতে নিহত অপু বাসা থেকে বের হয়ে দেওভোগ নাগবাড়ী মন্দির এলাকায় এলে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা অতর্কিত হামলা চালিয়ে তাকে ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে। পরে স্থানীয় এলাকার পথচারীরা তাকে উদ্বার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

ফতুল্লা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আসলাম হোসেন জানায়, এ ঘটনায় পারভেজ নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে এবং এই হত্যা কান্ডের সাথে সে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। তিনি আরো জানান, টাকা লেনদেনের বিরোধ নিয়ে এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। ময়না তদন্তের জন্য নিহতের লাশ উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে।