প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রমিকদের অধিকার নিয়ে সব সময়ই সরব – পলাশ

রিপোর্ট নারায়ণগঞ্জ ২৪ : জাতীয় শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক উন্নয়ন ও কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক  কাউসার আহমেদ পলাশ বলেছেন, একসময় আমাদের শ্রমিকরা তাদের দাবির জন্য রাজপথে মিছিল করতে নামলে পুলিশের লাঠিপেটার কারণে রাজপথে নামতে পারে নাই। মিছিল করতে নামলেই লাঠিপেটা আর গ্রেফতার করে কারাগারে বন্ধী করে রাখা হতো। কিন্তু এখন আর সেই পূর্বের অবস্থা নেই। পুলিশ এখন শ্রমিকের বন্ধুর ভূমিকা পালন করেন।

বুধবার (১মে) সকালে শহরের চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে এক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শ্রমিক নেতা পলাশ আরো বলেন, আমেরিকার শিকাগো শহরে রক্তের বিনিময়ে মে দিবস নামের এই দিনটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। শ্রমিকের অধিকার প্রতিষ্ঠার লক্ষে এই দিনটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। দেশ স্বাধীন হওয়ার পরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭২ সালে সারা বাংলার শ্রমিকদের বিশ্বের শ্রমিকদের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে ঐক্যবদ্ধ করা চেষ্টা করেছেন। যেকোন সমস্যায় যেমন সকল মালিকরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে যায় কিন্তু অনেক অনেক শ্রমিক ফেডারশন এ মাঝে দ্বিধা-দ্বন্দ্বের কারণে আজকেও শ্রমিক আর অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়। শ্রমিকদের জন্য বর্তমান সরকার বিভিন্ন সুবিধার ব্যবস্থা করেছেন যা আগের কোন সরকার করেনি।  শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধিতে ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় একমাত্র বর্তমান সরকারের কৃতিত্ব রয়েছে। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শ্রমিকদের অধিকার নিয়ে সবসময়ই সরব। তিনি অত্যন্ত শ্রমিকবান্ধব।

মো: খোরশেদুল হক ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে আলোচনা সভার প্রধান অতিথি হিসেবে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সেলিম রেজা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ফুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহিদুল আলম, বিকেএমইএ এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম, নারায়ণগঞ্জ জেলা চেম্বার অব সহ-সভাপতি মোরশেদ সরোয়ার সোহেল, এছাড়াও মহিলা শ্রমিকলীগ নেত্রী উমাইয়া বেগম সুমি, শ্রমিক নেতা আবুল খায়ের ভূইয়া সহ প্রমুখ।